চূড়ান্ত লক্ষ্যের কাছাকাছি ইভিলিন শর্মা

ইভিলিন শর্মা বলিউডে পা রাখার পর খুব বেশি সময় পার হয়নি। মাত্র তিন বছরে তার অভিনীত ৭টি হিন্দি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। প্রতিটিতেই তার পর্দা উপস্থিতি দর্শকদের নজর কেড়েছে। নতুন প্রজন্মের গ্ল্যামারাস অভিনেত্রীদের কাতারে তার অবস্থানটি ক্রমেই উজ্জ্বল হয়ে উঠছে। হালে পর পর দু’ সপ্তাহে ইভিলিনের দুটি নতুন সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। যার সুবাদে তাকে নিয়ে আলোচনা হচ্ছে এখন।

গত সপ্তাহে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘কুচ কুচ লোচা হ্যায়’ ছবিতে ইভিলিন শর্মাকে দেখা গেছে সানি লিওনের পাশাপাশি সমান্তরাল আরেক নায়িকা চরিত্রে। যথেষ্ট গ্ল্যামারাস এবং আবেদনময় ইমেজে তাকে দেখা গেছে সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত এ ছবিতে। চলতি সপ্তাহেও ইভিলিনের নতুন আরেকটি ছবি ‘ইশকদারিয়ান’ মুক্তি পাচ্ছে। রোমান্টিক ধাঁচের এ ছবিতে মিঠুন চক্রবর্তী তনয় মহাক্ষয় চক্রবর্তী মিমোর বিপরীতে একজন সাদামাটা গ্রামীণ তরুণীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন এই অভিনেত্রী। এর আগে তাকে বিভিন্ন ছবিতে যে ধরনের গ্ল্যামারাস চরিত্রে দেখা গেছে, ‘ইশকদারিয়ান’ ছবির নায়িকা চরিত্রটি তার চেয়ে কিছুটা অন্যরকম। এ প্রসঙ্গে ইভিলিনের বক্তব্যও খুব স্পষ্ট। তিনি বলেন, ‘আগের ছবিগুলোতে আমাকে শহুরে মেয়ে রূপে দেখে অভ্যস্ত দর্শক এবার একজন গ্রামের সাধারণ মেয়ে রূপে দেখে কিছুটা অবাক হবেন। এ ছবির মাধ্যমে নিজেকে ভিন্নভাবে পর্দায় উপস্থাপনের চেষ্টা করেছি। ‘ইশকদারিয়ান’ ছবিটি আমার ক্যারিয়ারে নতুন মোড় সৃষ্টি করবে আশা করি।’

ইভিলিন লক্ষ্মী শর্মার জন্ম জার্মানির ফ্রাঙ্কফুর্টে। তার বাবা ভারতীয় আর মা জার্মান। ফ্রাঙ্কফুর্টেই বড় হয়েছেন। পড়াশোনা করেছেন ব্যবসা বিষয়ে। রিয়েল এস্টেট ব্যবসায় নিজেকে সম্পৃক্ত করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সুন্দরী বলে মডেলিংয়ের প্রস্তাব আসতে থাকে তার কাছে। বেশকিছু কসমেটিকস সামগ্রীর বিজ্ঞাপনে মডেল হয়েছিলেন ইংল্যান্ডে। সেই সুবাদে একটি ব্রিটিশ সিনেমা ‘টার্ন লিফট’-এ অভিনয়ের সুযোগ পেয়েছিলেন। ‘ব্রিটিশ সিনেমায় চাইলে ক্যারিয়ার গড়তে পারতাম, কিন্তু বলিউড আমাকে হাতছানি দিয়ে ডাকছিল, আমি সে ডাক উপেক্ষা করতে পারিনি। ২০১২ সালে ‘ফ্রম সিডনি উইথ লাভ’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে আমার অভিষেক। প্রথম ছবিটি তেমন সাড়া না জাগালেও লুবাইনা চরিত্রে আমার অভিনয় দর্শকদের নজর কেড়েছিল,’ ইভিলিন বলেন। এরপর ‘নাওটাঙ্কি শালা’, ‘ইশাক’ এবং ‘ইয়ে জাওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি’ ছবিতে অভিনয় করেন তিনি। প্রতিটি ছবিতেই তার কাজ প্রশংসিত হয়েছে। গত বছর ইভিলিনকে দেখা গেছে দুটি হিট ছবি ‘ইয়ারিয়ান’ এবং ‘ম্যায় তেরা হিরো’তে। মাত্র তিন বছরে তার সাতটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। তার মতো একজন নবাগতা অভিনেত্রী খুব কম সময়ে অনেকগুলো ছবিতে অভিনয় করেছেন। ‘বলিউডে এখনো আমার শক্ত অবস্থান গড়ে ওঠেনি। এখনো আমি নিজেকে ফ্রেশ মনে করি। আমাকে আরও অনেকটা পথ পাড়ি দিতে হবে। আমি সেই পথ পাড়ি দিয়ে চূড়ান্ত লক্ষ্যে পৌঁছুতে চাই। আমি আমার যোগ্যতা ও মেধা সম্পর্কে সচেতন। আমার কাজে ম্যাচিওরিটির প্রকাশ ঘটছে ধীরে ধীরে। আগামীতে আমি আরও ভালো কাজ করতে চাই,’ ইভিলিনের কণ্ঠে প্রত্যয়ী ভাব ফুটে ওঠে। আগামীতে তাকে ‘ভাইয়াজি সুপারহিট’ ছবিতে দেখা যাবে সানি দেওল, প্রীতি জিনতার সঙ্গে। এখনো মডেলিং করছেন তিনি। বডিকেয়ার নামে একটি মেয়েদের আন্ডার গার্মেন্টস সামগ্রীর বিজ্ঞাপনে মডেল হয়েছেন ইভিলিন। গানের জগতেও বিচরণ করেছেন তিনি। ২০১৪ সালে ব্রুকলিন শান্তির অ্যালবাম ‘বেডস্টাইল’-এ ‘সামথিং বিউটিফুল’ গানটি গেয়েছেন ইভিলিন। ইংরেজি, ফ্রেঞ্চ, ডাচ, স্প্যানিশ, থাই, রাশিয়ান, ফিলিপিনো ভাষায় অনর্গল কথা বলতে পারেন তিনি।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Most searched keywords: Insurance, Loans, Mortgage, Attorney, Credit, Lawyer, Donate, Degree, Hosting, Claim, Conference Call, Trading, Software, Recovery, Transfer, Gas/Electricity, Classes, Rehab, Treatment, Cord Blood, domain, music, mobile, phone, buy, sell, classifieds,recipes
Top