রেস্টুরেন্টে কাজ করছেন ওবামার ছোট মেয়ে!

হোয়াইট হাউজের আরামের জীবন ছেড়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার ছোট মেয়ে সাশা ওবামা কাজ নিয়েছেন একটি রেস্টুরেন্টে। সামুদ্রিক খাবারের জন্য বিখ্যাত ওই রেস্টুরেন্টে আগত ক্রেতাদের খাবারের অর্ডার নিচ্ছেন তিনি, খাবারের অর্ডার পৌঁছে দিচ্ছেন শেফদের কাছে, খাওয়া শেষ হলে পরিষ্কার করছেন টেবিল। ক্যাশ রেজিস্ট্রারের দায়িত্বও সামলাচ্ছেন মার্কিন এই ফার্স্ট ডটার।

গ্রীষ্মের ছুটিতে কাজ করার জন্যই তিনি বেছে নিয়েছেন এই রেস্টুরেন্টকে। এ খবর দিয়েছে বোস্টন হেরাল্ড।

খবরে বলা হয়, ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের মার্থা’স ভিনিয়ার্ড দ্বীপে সামুদ্রিক খাবারের জনপ্রিয় রেস্টুরেন্ট ন্যান্সি’স-এ কাজ শুরু করেছেন সাশা ওবামা। এই রেস্টুরেন্টটি অবশ্য ওবামা পরিবারের পছন্দের একটি রেস্টুরেন্ট।

গ্রীষ্মের ছুটি কাটাতে এর আগেও একাধিকবার মার্থা’স ভিনিয়ার্ডে গিয়েছেন ওবামা পরিবার। আর সেখানে সামুদ্রিক খাবারের জন্য তাদের প্রথম পছন্দ ন্যান্সি’স রেস্টুরেন্ট।

প্রকৃতপক্ষে ওই রেস্টুরেন্টের স্বত্বাধিকারী জো মুজাব্বের ওবামা পরিবারের একজন বন্ধুও। ফলে ওই রেস্টুরেন্টকেই সাশার প্রথম কাজের অভিজ্ঞতার জন্য বেছে নেয়া হয়েছে। সেখানে মার্কিন প্রেসিডেন্টের এই ছোট মেয়ে আর দশজন সাধারণ কর্মীর মতোই করছেন কাজ।

রেস্টুরেন্ট খোলার সময় থেকে প্রথম চার ঘণ্টার শিফটে কাজ করছেন তিনি। রেস্টুরেন্ট খোলার পর প্রস্তুতির কাজে সহায়তা করছেন তিনি। পরে ক্রেতাদের খাবারের অর্ডার নেয়া থেকে শুরু করে টেবিল পরিষ্কার করা, খাবার পৌঁছে দেয়ার মতো সব কাজই করছেন।

সাধারণ কর্মীদের মতো কাজ করলেও একেবারে একা তাকে ছেড়ে দেয়া হয়নি মার্থা’স ভিনিয়ার্ডে। সাশা যতক্ষণ ন্যান্সি’স-এ কর্মরত তার সুরক্ষায় ছয়জন নিরাপত্তা কর্মী ততক্ষণ ঠায় দাঁড়িয়ে থাকে বাইরে।

ওই রেস্টুরেন্টের আরেক কর্মী বলেন, ‘সে যখন বাইরে কাজ করছিল তখন ছয়জন মানুষ তাকে সহায়তা করছিল। আমরা বুঝে পাচ্ছিলাম না তারা কেন তাকে সহায়তা করছে। পরে আমরা জানতে পেরেছি তাদের কথা।’

প্রেসিডেন্টের মেয়ে কেন এমনটি করলেন সে বিষয়ে প্রশ্ন ওঠে।

এর জবাব দেন বারাক ওবামার স্ত্রী মিশেল ওবামা। গণমাধ্যমে তিনি বলেন, সন্তানরা একটি বয়সে আসার পর তাদের বিলাসিতা ছাড়তে বাধ্য করেছি আমি। আমি তাদের সাধারণ মানুষের সঙ্গে মিশতে পথে ছেড়ে দিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, জীবনটা শুধুই হোয়াইট হাউসকেন্দ্রিক নয়। এখানে জানতে হবে কীভাবে চলছে যুক্তরাষ্ট্রের খেটে খাওয়া মানুষের জীবন। এটি না হলে নিজেকে সঠিক মানুষরূপে গড়ে তুলতে পারবে না তারা।

আর সে জন্যই ছুটির ফাঁকে এমনটি করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি।

কমেন্টসমুহ
সিক্রেট ডাইরি সিক্রেট ডাইরি

Top