মাছের ডিম দিয়ে কচুর লতির রেসিপি

কচু মুখে ধরে বলে অনেকেই খেতে চায় না বা পছন্দ করে না। কিন্তু কচুর লতিতে রয়েছে কচুর লতিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘সি’, যা সংক্রামক রোগ থেকে শরীরকে রক্ষা করে। শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে করে দ্বিগুণ শক্তিশালী। ভিটামিন ‘সি’চর্মরোগ প্রতিরোধে কাজ করে। ওজন কমানোর জন্য কচুর লতি খাওয়া ভালো।

কচুর লতি বিভিন্নভাবে রান্না করা যেতে পারে। স্বাভাবিকভাবে রান্না করলে হয়তো ভালো লাগবে না। তাই আপনি চাইলে বড় কোন মাছের ডিম দিয়ে রান্না করতে পারেন। এতে খেতেও খুব সুস্বাদু লাগবে। শিশুরা মাছের ডিম খেতে ভালোবাসে। কিন্তু কচুর লতি খেতে চায় না। তখন একসঙ্গে দুটো রান্না করলে দেখেবেন খেয়ে নিবে খুব সহজেই।

এর রেসিপির উপকরণ :

১) কচুর লতি ২৫০ গ্রাম।

২) বড় মাছের ডিম।

৩) পিঁয়াজ কুচি ও বাটা।

৪) রসুন বাটা।

৫) নারকেল কোরা (দিলেও হবে, না দিলেও হবে)।

৬) পাঁচফোড়ন।

৭) হলুদ গুঁড়া ও শুকনো মরিচের গুঁড়া।

৮) লেবুর রস এক চামচ।

৯) কয়েকটি কাঁচা মরিচ ফালি।

১০) লবণ স্বাদমতো।

প্রণালি :

প্রথমে কচুর লতি ভালোভাবে পরিষ্কার করে ধুয়ে নিতে হবে। এরপর লবণ ও হলুদ দিয়ে হালকা সিদ্ধ করে পানি ফেলে দিতে হবে। এতে মুখে কম ধরবে। এখন একটি কড়াইতে তেল গরম করে পিঁয়াজ কুচি ও কাঁচা মরিচের ফালি দিয়ে ভেজে নিন। এরপর সব মসলা দিয়ে কষে নিন। এখন একটু পানি দিন। এরপর মাছের ডিম দিয়ে আরও কিছুক্ষণ কষিয়ে নিন। কষা হয়ে গেলে সিদ্ধ করে নেওয়া কচুর লতি ঢেলে দিন। পরিমাণ মতো লবণ দিয়ে নিন। একটু নেড়ে স্বাদযুক্তের জন্য এর ওপরে নারকেল কুচি ছিটিয়ে দিতে পারেন। এরপর লেবুর রস এক চামচ দিয়ে দিন। এখন সামান্য পরিমাণে পানি দিয়ে ঢাকনার মাধ্যমে ঢেকে দিন। একটু মাখা মাখা হয়ে গেলে নামিয়ে ফেলুন। বেশি গরমে পরিবেশন করবেন না। কচু একটু ঠাণ্ডা করেই খাওয়া ভালো। এতে মুখে ধরার সম্ভাবনা থাকবে না।

তথ্যসূত্র : রান্নার রেসিপি।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Most searched keywords: Insurance, Loans, Mortgage, Attorney, Credit, Lawyer, Donate, Degree, Hosting, Claim, Conference Call, Trading, Software, Recovery, Transfer, Gas/Electricity, Classes, Rehab, Treatment, Cord Blood, domain, music, mobile, phone, buy, sell, classifieds,recipes
Top
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com