চিনে রাখুন পেরিমেনোপজের এই লক্ষণগুলো

পেরিমেনোপজ হলো মধ্যবয়সী নারীদের জীবনের এমন একটি সময় যখন শরীর মেনোপজের জন্য তৈরি হয়। মেনোপজের অনেক আগে থেকেই পেরিমেনোপজ শুরু হয় এবং এ সময়ে বেশ কিছু অস্বস্তিকর শারীরিক উপসর্গ দেখা দিতে পারে। নিজেকে মানসিকভাবে মেনোপজের জন্য প্রস্তত রাখার জন্য জেনে রাখুন এ উপসর্গগুলোকে।

১) আপনার বয়স যখন ৪২ এর উপরে
মেনোপজের শুরু হয় গড়ে ৫২ বছর বয়স থেকে। কিন্তু পেরিমেনোপজ ৪২ বছর থেকেই সাধারণত শুরু হয়ে যায়। ৪২ বছরের আগে এসব উপসর্গ দেখা দিলে ডাক্তাররা একে প্রিম্যাচিওর বলে ধরে নেবেন এবং এর কারণগুলো খুঁজে দেখবেন। কিন্তু ৪২ বছরের পর এসব উপসর্গ একেবারেই সাধারণ।

২) আপনি চলতে ফিরতে হোঁচট খাচ্ছেন
হাত থেকে জিনিসপত্র পড়ে যাচ্ছে, আসবাবপত্রে ধাক্কা খাচ্ছেন, পিছলে পড়ে যাচ্ছেন, হোঁচট খাচ্ছেন খুব বেশি? আপনার শরীর হয়তো অনেক দ্রুত এবং অনেক বেশি পরিবর্তিত হচ্ছে কম সময়ের মাঝে। হরমোনের পরিবর্তনের কারণে এর পাশাপাশি আপনার ত্বক আগের চাইতে পাতলা হয়ে যেতে পারে। ফলে ব্যথা পেলে তার দাগ পড়ে সহজে।

৩) চোখ শুকিয়ে যাচ্ছে দ্রুত
হরমোনের পরিবর্তনের প্রভাব প্রথমেই পড়তে পারে চোখে। চোখের আশেপাশে বলিরেখা এবগ্ন কুঞ্চন তো বটেই। এর পাশাপাশি চোখ শুকিয়েও যেতে পারে সহজেই। এ কারণে আপনার দৃষ্টিশক্তিতেও পরিবর্তন আসতে পারে। ফলে আপনার আই ড্রপ দরকার হতে পারে।

৪) আপনার স্মৃতিশক্তি কমে আসছে
আপনি সহজেই এটা সেটা ভুলে যাচ্ছেন। সবসময় আপনার স্মৃতি ধোঁয়াটে হয়ে আছে। এর পেছনেও দায়ী হরমোন। ইস্ট্রোজেন এবং প্রোজেস্টেরনের পরিমাণে ভারসাম্য থাকা দরকার হয় শরীর ঠিকভাবে চলার জন্য। কিন্তু বয়সের সাথে ওভ্যুলেশন কমে যেতে থাকে ফলে প্রোজেস্টেরনও কমে যায়। এ কারণে অতিরিক্ত ইস্ট্রোজেন এক ধরণের স্ট্রেস হরমোনে পরিণত হয়। এটা স্মৃতিশক্তিকে প্রভাবিত করে।

৫) আপনি সহজেই আবেগপ্রবণ হয়ে পড়ছেন
খুব সহজেই মেজাজের পরিবর্তন এবং আবেগতাড়িত হয়ে পড়াটা এই সময়ের একটি লক্ষণ। হরমোনের ওঠানামার সাথে মেজাজের ওঠানামা সম্পর্কিত। এ কারণেই এ সময়ে নারীরা সহজেই বেশি কান্নাকাটি করেন বা রেগে যান, মেজাজ খিটখিটে হয়ে থাকে।

৬) ওজন বাড়ছে কোমরের আশেপাশে
বয়সের সাথে একটু করে ওজন বাড়াটা স্বাভাবিকই ধরা যায়। কিন্তু এই ওজন বাড়াটা কোমোরের আশেপাশে হয় তখনই যখন পেরিমেনোপজের কারণে আপনার মেটাবলিজম ধীর হয়ে যায় এবং আপনি অস্বাস্থ্যকর খাদ্যভ্যাস বজায় রাখেন। এ সময়ে পুষ্টিকর, কম ক্যালোরির খাবার খাওয়া উচিৎ, ক্যালোরি পোড়ায় এমন শরীরচর্চা করা দরকার।

৭) আপনি অনেক বেশি ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করছেন
প্রোজেস্টেরনের মাত্রা কমে যাবার সাথে সাথে ত্বকের কোলাজেন ভেঙ্গে যেতে থাকে। এ কারণে ত্বক হয়ে পড়ে পাতলা এবং শুষ্ক। অনেকের দেখা দেয় অ্যালার্জি এবং ব্রণের উপদ্রব, এমনকি একজিমা।

৮) ঘুম কমে যায়
ওভ্যুলেশন কমে যাবার সাথে ঘুমও কমে যেতে পারে। প্রোজেস্টেরন আমাদেরকে প্রশান্ত রাখে। এ কারণে এই হরমোনটি কমে গেলে আপনি দুশ্চিন্তা বেশি করবেন এবং রাতভর না ঘুমিয়ে চিন্তা করতে থাকবেন, এমন হতে পারে।

৯) হঠাৎ করে জীবনে পরিবর্তন আনতে ইচ্ছে হতে পারে
এ সময়ে নিজের জীবনের সিদ্ধান্তগুলো নিয়ে অনেক নারীই দ্বিতীয়বার ভাবতে পারেন। জীবনে আমূল পরিবর্তন আনার কথাও ভাবতে পারেন।

এছাড়াও আরও কিছু উপসর্গ দেখা দিতে পারে। যেমন-
– হট ফ্ল্যাশ
– যৌনাঙ্গের শুষ্কতা
– ক্লান্তি
– অনিয়মিত পিরিয়ড
– প্রচন্ড ক্লান্তি

এসব উপসর্গ বেশীরভাগ নারীর মাঝেই দেখা যায়। কিন্তু অনেকের ক্ষেত্রে আবার এমন কোনো উপসর্গই দেখা যায় না। মূলত তাদের জীবনে মেনোপজের আগে তেমন কোনো পরিবর্তন আসতে দেখা যায় না। হয়তো কিছু বলিরেখ বাড়ে, কিন্তু এর বেশি নয়। এটা তাদের জিনের ওপর নির্ভর করে, এছাড়াও সুখী জীবনযাপনের মাধ্যমেও এসব উপসর্গ এড়ানো সম্ভব হয়। আপনি যদি সবসময় নিজের শরীরের যত্ন নিয়ে থাকেন, তবে বয়স বৃদ্ধির এই প্রক্রিয়া আপনাকে তেমন কষ্ট দেবে না।

কমেন্টসমুহ
সিক্রেট ডাইরি সিক্রেট ডাইরি

Most searched keywords: Insurance, Loans, Mortgage, Attorney, Credit, Lawyer, Donate, Degree, Hosting, Claim, Conference Call, Trading, Software, Recovery, Transfer, Gas/Electricity, Classes, Rehab, Treatment, Cord Blood, domain, music, mobile, phone, buy, sell, classifieds,recipes
Top