আদৌ কি তারা জানতেন বিষয়টা !

শাবনূরের ছেলের নাম আইজান, পূর্ণিমার মেয়ের নাম আরিশা এবং অপু বিশ্বাসের ছেলের নাম আবরাম। প্রতিটি নামই ‘আ’ দিয়ে শুরু। কাকতালীয়ভাবে মিলে গেছে ঢাকাই ছবির তিন জনপ্রিয় নায়িকার সন্তানের নামের প্রথম অক্ষর। কিন্তু মিললই বা কিভাবে? আদৌ কি তারা জানতেন বিষয়টা?

আইজান গর্ভে আসার পর থেকেই নামটি পছন্দ করে রেখেছিলেন শাবনূর। শাবনূর বলেন, এটা ওর বাবারও খুব পছন্দের। পূর্ণিমা আর অপুও যে ছেলে-মেয়ের নাম ‘আ’ দিয়ে রাখবে জানতাম না। সত্যি বলতে, যদি জানতাম তাহলেও কিন্তু ছেলের নাম আইজানই রাখতাম। বদলাতাম না! আমরা একই অঙ্গনে কাজ করি। মিল থাকা তো ভালোই।

ভারি দুষ্টু হয়েছে আইজান। ওকে সামলাতেই দিন যায় শাবনূরের। কারো কাছে থাকতে চায় না। সারাক্ষণ ‘মা, মা’ বলে চিৎকার করে। চোখের আড়াল হলেই হয়েছে, বাড়িসুদ্ধ পাগল করে ছাড়ে।

২৯ ডিসেম্বর আইজানের বয়স চার বছর হবে। আইজান যেকোনো জায়গায় গিয়ে খাপ খাইয়ে নিতে পারে খুব সহজে। কাউকে ভয় পায় না। এই ভালো তো এই মন্দ। একসঙ্গে খেলতে গেলে অন্য বাচ্চাদের প্রায়ই মেরে বসে! ওকে নিয়ে কোথাও গেলে খুব ভয়ে থাকি। কী করতে কী করে ফেলে কে জানে! কোনো কিছুই ওর কাছে নতুন বলে মনে হয় না। সব যেন আগে থেকেই চেনা। দেশে আসার আগে অস্ট্রেলিয়ায় ওকে নিয়ে এক পার্কে গিয়েছিলাম। সেখানে এমন কোনো রাইড নেই যেটাতে ও চড়েনি। যে রাইডগুলোতে আমি চড়তে ভয় পাই, সেগুলোতেও কত সহজে মানিয়ে নিচ্ছে! ও খুব মেধাবী। একবার কোনো কিছু বললে ভোলে না। জন্মসূত্রে সে অস্ট্রেলিয়ান। ইংরেজিতেই অভ্যস্ত, তবে বাংলাতেও বেশ আগ্রহ। নানা-নানির সঙ্গে বাংলাতেই কথা বলে। আমার বিশ্বাস ও বিশ্ব জয় করবে।

পূর্ণিমা বলেন, শাবনূর আপুর ছেলের নাম আইজান আগে থেকেই জানতাম। আইজান আমার মেয়ের চার মাসের বড়। আপু তখন অস্ট্রেলিয়ায় ছিলেন। পত্রিকায় ওর নাম পড়েছিলাম। কিন্তু তারও আগে থেকেই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম আমার মেয়ের নাম রাখব আরিশা। শাকিব-অপুও যে তাদের সন্তানের নাম ‘আ’ দিয়ে রাখবে ভাবিনি। অবশ্য এই মিলটা ভালোই। আগে কখনো এভাবে চিন্তা করে দেখিনি। বিষয়টা মাথায় গেঁথে গেল। এখন ভাবছি ওদের তিনজনের সঙ্গে বন্ধুত্ব করিয়ে দেব। ১৩ এপ্রিল ওর তিন বছর হলো। আরিশা চঞ্চল না, চুপচাপ স্বভাবের। মেয়েরা যেমন হয় আর কি। আমি খুব বুঝতে পারি আরিশা কতটা মেধাবী। ওকে মাঝেমধ্যে শুটিংয়ে নিয়ে যাই। ক্যামেরার দিকে চোখ বড় বড় করে চেয়ে থাকে। জানি না বড় হয়ে ওর মিডিয়াতে কাজ করার ইচ্ছা হবে কি না! তবে আগে লেখাপড়াটা শেষ করাতে চাই।

অপু বিশ্বাস বলেছেন, আবরাম নামটা শাকিবের খুব প্রিয়। ওর ইচ্ছাতেই এই নাম রাখা হয়েছে। কিন্তু আজ নতুন তথ্য জানলাম। শাবনূর আপু ও পূর্ণিমা আপুর বাচ্চাদেরও নামের প্রথম অক্ষর ‘আ’। আইজান ও আরিশার সঙ্গে আগে থেকেই আমি পরিচিত, কিন্তু এভাবে তো ভেবে দেখিনি? বাহ্, দারুণ তো! এই তো সেদিন পূর্ণিমা আপু এসে আবরামকে কত আদর করে গেলেন। একসঙ্গে সেলফিও তুললেন। আবরামকে অনেক আদর করেন শাবনূর আপুও। আমার সন্তানের প্রতি তাদের ভালোবাসায় আমি কৃতজ্ঞ।

২৭ সেপ্টেম্বর আবরামের বয়স এক বছর হবে। মিডিয়ার কল্যাণে ও কিন্তু এরই মধ্যে পরিচিত মুখ। ফেসবুকে আমি ওর নামে আইডি খুলেছি। ওর ফলোয়ার এক লাখ ৭৫ হাজারেরও বেশি! কিছুদিন আগেও হাজার হাজার মানুষ আবরামের ছবিকে তাদের প্রোফাইল ছবি হিসেবে ব্যবহার করেছে। আবরাম পৃথিবীর সবচেয়ে শান্ত একটা বাবু। ছেলেরা এত শান্ত হয় আগে দেখিনি। আমি এখন আবার কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েছি। কিন্তু ওর তাতে কোনো মাথা ব্যথা নেই। সকালে খাইয়ে দিলেই হয়েছে। সারা দিন চুপচাপ। শুধু আমি যখন বাড়ি আসি কোলে ঝাঁপিয়ে পড়ে কী যেন বলতে চায়। এর মধ্যে টুকটাক কথা বলতে শিখে গেছে! আমি চাই ও পড়াশোনা করে মানুষের মতো মানুষ হোক। শোবিজে কাজ না করুক, এটাই আমার ইচ্ছা। ডাক্তার বা ইঞ্জিনিয়ার হয়ে দেশের সেবা করলেই ভালো।

কমেন্টসমুহ
সিক্রেট ডাইরি সিক্রেট ডাইরি

Top