ব্যক্তিত্বের যে বৈশিষ্ট্যটি বলবে আপনি মিথ্যা বলছেন কিংবা প্রতারণা করছেন!

বহু বছর ধরে অনেক মনোবিজ্ঞানীই বিশ্বাস করতেন যে মানুষের ব্যক্তিত্বের ৫টি বৈশিষ্ট্য তার আচরণের ধরণ প্রকাশ করে। এই বৈশিষ্ট্যগুলোকে একত্রে ‘বিগ ফাইভ’ বলা হয়। এগুলো হল, সরলতা, বিচক্ষণতা, বহির্মুখিতা, সৌজন্য ও বাতিকগ্রস্ততা।

সম্প্রতি জার্মানীর কোবলেনজ-ল্যানডাউ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা বললেন, ৫টি নয় মানুষের ব্যক্তিত্বের ৬টি বৈশিষ্ট্য তার আচরণ কেমন হবে তা বলে দিতে পারে। তাদের সংযোজিত এই বৈশিষ্ট্যটি মানুষের অসততাকে পরিস্ফুটিত করতে পারবে।

নতুন সংযোজিত এই বৈশিষ্ট্যটিকে বলা হচ্ছে ‘সততা-নম্রতা’ ফ্যাক্টর। সাধারণত এটা বলতে বোঝায়, কারো সাথে কারবারের ক্ষেত্রে নিজেকে স্বচ্ছ রাখার প্রবণতা এবং অন্যকে কাজের চাপে রেখে নিজে লাভবান না হওয়ার চিন্তা পোষণ করা।

একটি ধারাবাহিক পরীক্ষার মাধ্যমে গবেষকরা প্রদর্শন করেছেন যে, যেসব মানুষের এই ভদ্রতা-নম্রতার স্কেলে স্কোর কম থাকে তারা বেশিরভাগ সময়ই নিজে লাভবান হওয়ার জন্য প্রতারণা করে থাকেন।

এক পরীক্ষায়, অংশগ্রহণকারীদেরকে হেক্সাকো পারসোনালিটি অ্যাসেসমেন্ট নামের ওয়েবাসইটে একটি পরীক্ষা করতে বলা হয়। এই পরীক্ষাটির মাধ্যমে যে কারো ‘সততা-নম্রতার’ স্কেল মাপা যায়। সেখানে লুডুর ডায়েস গড়িয়ে যদি নির্ধারিত নম্বরে পড়ে তাহলে ৫ পাউন্ড করে দেওয়া হয়।

ফলাফলে দেখা গেছে, যাদের সততা-নম্রতার স্কেলের স্কোর কম তারা ৭৫ শতাংশ সময় পর্যন্ত সঠিক নম্বর পাওয়ার জন্য ডায়েস ঘুরিয়েছেন। আর তাই বাস্তবে তাদের জেতার সম্ভাবনা মাত্র ১৭ শতাংশ। কম স্কোরকারীরা যে, প্রায়ই মিথ্যা কথা বলে তা কিন্তু এই পরীক্ষাটি সুস্পষ্ট ধারণা দেয়। গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হল, সততা-নম্রতার মত আর কোন বৈশিষ্ট্যেতেই মিথ্যা কথার সম্পর্ক নেই।

কোন ব্যক্তির মিথ্যা কথা ও প্রতারণার করার পরিমাপের পরীক্ষাটির উপর ভিত্তি করে কর্মক্ষেত্রে তার সম্ভাব্য প্রভাব সম্পর্কে আগাম ধারণা পাওয়া যেতে পারে। উদাহরণস্বরূপ, মেল্লোন বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংগঠনিক আচরণতত্ত্ব বিভাগের সহকারী প্রফেসর টায়া কোহেন ‘নিউ সাইনটিস্ট’কে বলেন, যেসব মানুষজন সততা-নম্রতার ফ্যাক্টরটিতে কম স্কোর করেন তারা অফিসের হাজিরা খাতা এবং সরবরাহের কাজে ফাঁকি দিয়ে থাকেন।

দি হাফিংটন পোস্ট’কে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন: “এ কারণেই চাকুরীজীবী নিয়োগের আগে তাদের সততা-নম্রতা পরিমাপ করা দরকার। এখন আমারা জানি ঠিক কোন বৈশিষ্ট্যের প্রতি নজর দিতে হবে। এখন কর্মচারী নিয়োগ ও পদোন্নতির ক্ষেত্রে আমরা এ পদ্ধতির মাধ্যমে আমরা এ বিষয়গুলোর উন্নতি করতে পারবো। কিন্তু মানুষ ‍কিন্তু তাদের চরিত্রের খারাপ বিষয়গুলো সব সময়ই লুকোতে চায়। কিন্তু এ পদ্ধতির মাধ্যমে তা করা আর সম্ভব হবে না।”

চাকরিতে নিয়োগ দেওয়ার জন্য ব্যক্তিত্ব পরীক্ষা করার এই ব্যাপক বিস্তার এটিকে কষ্টকল্পিত ধারণার বাইরে আনতে পেরেছে।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Most searched keywords: Insurance, Loans, Mortgage, Attorney, Credit, Lawyer, Donate, Degree, Hosting, Claim, Conference Call, Trading, Software, Recovery, Transfer, Gas/Electricity, Classes, Rehab, Treatment, Cord Blood, domain, music, mobile, phone, buy, sell, classifieds,recipes
Top