জেনে রাখুন ক্যারিয়ারে সফল হওয়ার মূলমন্ত্র

ক্যারিয়ারে সফল হওয়ার হয়তো নির্দিষ্ট কোনো চাবিকাঠি নেই। কিন্তু যদি পরিস্থিতি অনুযায়ী ক্ষমতা ও বুদ্ধির ব্যবহার করে ক্যারিয়ারে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়ে এগিয়ে যেতে পারেন তএই সফল হতে পারবেন। সফল হওয়ার কোনো ফর্মুলা নির্ধারণ করা মুশকিল। ঠিক কোন জিনিসটা অর্জন করলে তাকে সাফল্য মনে করা যেতে পারে, তার মাপকাঠিও নির্দিষ্ট করা যায় না। আসলে এক এক জনের কাছে সাফল্যের মানে এক এক রকম। কিন্তু এটা মানতেই হবে যে সাফল্য পাওয়ার পদ্ধতি কিন্তু মোটামুটি এক। নিজের কাজের প্রতি কমিটমেন্ট, দায়বদ্ধতা ও ভালোবাসাই হল সফল হওয়ার জন্য সহজ রসায়ন।

কাজের চাপ আমাদের নিত্যসঙ্গী হলেও তারই মধ্যে নিজেকে প্রমান করার সমস্ত সুযোগের স্বদ্বব্যবহার করতে হবে। অফিস পলিটিকস বা গসিপে বেশি মনোযোগ দেওয়ার থেকে নিজের কাজের প্রতি সচেতন হন। এটুকু জানেন যদি নিজের কাজের প্রতি সৎ থাকেন, তা হলে নিশ্চিত ভাবে বলা যায় যে আপনি সফল হবেনই। নিজের ওয়ার্ক লাইফ নিয়ে সন্তুষ্ট থাকাও সমান দরকার। ভেবেই দেখুন না, আপনার স্কুলের বন্ধু হয়তো আপনার থেকে বড় কোম্পানিতে কাজ করেছেন আর আপনি সেই ভেবে দীর্ঘশ্বাস ফেলছেন, এতে কিন্তু নিজের জীবনের উপলব্ধিগুলোও ছোট মনে হবে। অন্যের নিরিখে নিজের সাফল্য মাপবেন না। বরং নিজে কী করতে পেরেছেন, সেটা নিয়ে গর্ব বোধ করুন। ভাল থাকবেন।

সফল হওয়ার জন্যে কিন্তু থামতে শেখাও জরুরি। নিজের পক্ষে অর্জন করা সম্ভব নয় এরকম লক্ষ্য স্থির করবেন না। নিজের যোগ্যতা, ক্ষমতা অনুযায়ী মাপকাঠি তৈরি করুন। সেই মাপকাঠির বিচারে নিজেকে বিচার করলে মনের ওপর চাপ সৃষ্টি হবে না।

সফল হওয়ার প্রাথমিক শর্ত

সফল হওয়ার জন্যে প্রত্যেকটা কাজে ব্যালেন্স বজায় রাখতে হবে। অফিসে পৌঁছানোর পরই কাজে ঝাঁপিয়ে না পড়ে, প্রথমে একটা প্রায়োরিটি লিস্ট। অর্থাৎ, গুরুত্ব অনুযায়ী কাজগুলো সাজিয়ে নিন। কাজটা করতে কতটা সময় লাগবে, লিখে রাখুন। সবসময় হয়তো প্রায়োরিটি লিস্ট পুরোপুরি ফলো করতে পারবেন না। নিন্তু নির্দিষ্ট প্যাটার্নে কাজ সাজিয়ে নিলে সহজে ভুল হবেন না। অযথা সময়ও নষ্ট হবে না।

কাজের পদ্ধতি যত পারফেক্টলি প্ল্যান করতে পারবেন, একজিকিউশনও তত নিখুঁত হবে। সব সময় যে প্ল্যান করলেই কাজ ভাল হবে তা নয়, তাই হতাশ না হয়ে নিজের উপর ভরসা রাখুন।

নিজেকে আপডেটেড রাখুন। অনেক সময় আমরা নিজের কাজ নিয়ে এতো বেশি নিমজ্জিত হয়ে পড়ি যে, গতানুগতিক পদ্ধতির বাইরে বেরুতে পারি না। কিন্তু এই রকম চলতে থাকলে তা আপনার জন্যই সমস্যা হয়ে দাঁড়াবে।

শুধু নিজের কাজে দক্ষ হলেই চলবে না। সেই কাজ যত্নের সঙ্গে উপস্থাপনা করাও সাফল্য পাওয়ার অন্যতম নিয়ম। আর উপস্থাপনার প্রথম শর্ত হচ্ছে প্রস্তুতি। আপনি কী বলতে চান বা কেন কাজ করার সময় নির্দিষ্ট পদ্ধতি মেনে চলেছেন, তার যুক্তি আগে নিজেকে ভাল করে জানতে হবে।

অফিসে ক্রাইসিসের মুহূর্তে ডিসিশন মেকিংয়ের উপরই নির্ভর করে কাজের সাফল্য। সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্যে প্রথমেই প্রয়োজন ঠাণ্ডা মাথার। আবেগের বদলে উপস্থিত বুদ্ধি এবং যুক্তির প্রয়োগ করুন।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Most searched keywords: Insurance, Loans, Mortgage, Attorney, Credit, Lawyer, Donate, Degree, Hosting, Claim, Conference Call, Trading, Software, Recovery, Transfer, Gas/Electricity, Classes, Rehab, Treatment, Cord Blood, domain, music, mobile, phone, buy, sell, classifieds,recipes
Top