মোহাম্মাদপুরে ইফতারিতে ছোলা-মুড়ির সাথে জিলাপি মাখানো নিয়ে সংঘর্ষ!

রোজাদাররা এখন দুইভাগে বিভক্ত। এক ভাগ ছোলা মুড়ির সাথে জিলাপি মাখায়ে খেতে পছন্দ করে। আরেক ভগের লোকজন এটা একদমই পছন্দ করে না। এটা নিয়ে এতোদিন ফেসবুকে আলোচনা সমালোচনা হলেও, মোহাম্মাদপুরে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

জানা যায়, বন্ধুরা মিলে ইফতারির আয়োজন করেছিলো, সেখানে ছোলা-মুড়ির সাথে জিলাপি মাখানো যাবে কি যাবেনা, তাই নিয়ে বন্ধুদের মাঝেই তর্ক-বিতর্ক শুরু হয়। এই তর্ক-বিতর্ক এক পর্যায়ে হাতাহাতিতে রূপ নেয়। তারপর বেধে যায় সংঘর্ষ।

যাদের মুখে দূর্গন্ধ তারা নিচেরটুকু পড়ুন-

নিয়মিত ব্রাশ করেও মুখের দুর্গন্ধ থেকে রেহাই পাওয়া যায় না। ফলে জনসমক্ষে অসুবিধায় পড়তে হয়। আর এই সমস্যা এড়ানোর জন্যই অনেকে মাউথওয়াশ বা মাউথ ফ্রেশনার ব্যবহার করেন। কিন্তু সাময়িক দুর্গন্ধ দূর হলেও মাউথওয়াশ বড় বিপদ ডেকে আনে বলে দাবি মার্কিন বিজ্ঞানীদের। ‘আমেরিকান ডেন্টাল অ্যাসোসিয়েশন’-এর বিজ্ঞানীরা বলছেন, মাউথওয়াশ ব্যবহার করলে ডায়াবেটিসের সম্ভাবনা কয়েক গুণ বেড়ে যায়।

কমেন্টসমুহ
সিক্রেট ডাইরি সিক্রেট ডাইরি

Top