২ বছর হলো বিয়ের, সমস্যা স্বামীকে নিয়ে…

সমস্যাটি লিখেছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক তরুণী।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক। আমি আর আমার স্বামী দুবছর প্রেম করার পর পরিবারকে না জানিয়ে বিয়ে করেছি। আমাদের পরিবার এখনও জানে যে আমরা প্রেম করি কিন্ত বিয়ের কথা জানেনা। আমার পরিবার চায় মহা ধুমধাম করে আমার বিয়ে দিবে। কিন্ত আমার স্বামী বেকার, তার চাকরির কোন চেষ্টা বা ইচ্ছা কোনটাই নেই। আমি ওকে অনেক বুঝিয়েছি তাতে কাজ হচ্ছেনা। আমি ওকে বলি ছোট বা অল্প বেতন হলেও চলবে আমার তাতে কোন সমস্যা নেই। আমি শুধু চাই বাড়িতে সবাইকে যাতে বলতে পারি যে ও চাকরি করে বেকার নয়।

আমার অনেক বিয়ের প্রস্তাব আমি না করে দেই সেটা বিয়ের আগে থেকেই। বাড়ির লোক বলে ওকে বলতে চাকরি করতে, পাশাপাশি পড়াটা শেষ করতে। যাতে আত্বীয়দের বলতে পারে ছেলে চাকরি করছে পাশাপাশি পড়ালেখাও করছে। আমি চাই পারিবারিক ভাবে আমাদের বিয়েটা হোক। কিন্ত সে আমার কোন কথাই আমল করছে না।

আমাদের বিয়ের বয়স প্রায় দুই বছর।আমি ভার্সিটিতে ভর্তি হবার পর কিছুদিন ক্লাস করি, পরে যখন ওকে ভর্তির কথা বলি ও এড়িয়ে যায়। কথা দেবার পরও যখন পড়া বা চাকরি কিছুই করে না, তখন আমি পড়ালেখা বাদ দেই। সে আমার মাএ দু বছরের সিনিওর। সে সাইন্স থকে ইন্টার পড়ার পর ডিপ্লোমা করে সিভিলে।

আমাদের সম্পর্কের পর আমি অনেক বলেছি এভাবে সময় নষ্ট না করে বিএসসি করতে কিন্ত সে তা করতে রাজি হয়নি। এখন আমি জানতে চাই সমস্যা গুলোর সমাধান কীভাবে করবো।

 

পরামর্শ :

সত্যি কথা বলতে কি আপু, আপনার এই সমস্যার কোন সমাধান আমি দেখতে পাচ্ছি না। আপনার স্বামী তো কোন ছোট শিশু নন যে আপনি তাঁকে দিয়ে ধরে বেঁধে কিছু করাবেন। আর মানুষকে দিয়ে সেটা করানো যায়ও না। আপনার জন্য না হোক, তাঁর নিজের জন্য হলেও তো তাঁকে কিছু একটা করতে হবে। আমি বিশ্বাস করি প্রতিটি মানুষেরই নিজের উপার্জন করে খাওয়া উচিত।

আপনার পরিবার যথেষ্ট ছাড় দিচ্ছেন, এর চাইতে বেশী ছাড় আশা করা ঠিক হবে না। আমি যা দেখতে পাচ্ছি, শেখান থেকে এটাই দেখা যায় যে আপনি একের পর এক ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এই সিদ্ধান্তগুলোর ফলাফল আপনাকে অনেক বেশী ভোগ করতে হবে। প্রথম ভুল, ছেলেটির লেখাপড়ায় বা কাজকর্মে আগ্রহ নেই জেনেও আপনি তাঁকে হুট করে বিয়ে করে ফেলেছেন। বরং যদি বলতেন যে আগে কিছু করো, তারপর বিয়ে। তাহলে কাজ হতে পারত। অন্য দিকে ছেলেটি কথা দিয়ে কথা রাখে না, আপনার কথার দাম দেয় না, এসব দেখেও আপনি সম্পর্ক চালিয়ে গেছেন। আর সবচাইতে বড় ভুল এটাই করেছেন যে প্রেমিকের জন্য নিজের লেখাপড়া ছেড়ে দিয়েছেন। আপনি প্রেমিকের চাইতে বেশী শিক্ষিত হলে অসুবিধা কী বলবেন? সে কিছু না করলেও আপনি তো জীবনে কিছু করতে পারতেন। আপনি এত বড় বোকামিটা কেন করলেন আপু?

একটা সহজ কথা বলি, আপনার উচিত হবে অবিলম্বে লেখাপড়া আবার শুরু করা। ও নিজের ক্যারিয়ার গুছিয়ে চাকরি বাকরির চেষ্টা করা। আপনি জীবনের পথে এগিয়ে যাচ্ছেন দেখলে তাঁর হুঁশ হলেও হতে পারে। তবে কিছু মানুষের স্বভাবই আলসে। এমন এমন আলসে স্বভাবের স্বামী বা স্ত্রীর সাথে জীবন কাটানো কিন্তু খুব বেশী কঠিন। পদে পদে জীবনে ঝামেলায় পড়বেন। আপনি যেভাবেই হোক নিজের পায়ে দাঁড়ান। তাহলে অনেকটাই ভালো থাকবেন। এই ছেলেটির আসায় না থাকাই ভালো হবে।

 

 

 

 

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Most searched keywords: Insurance, Loans, Mortgage, Attorney, Credit, Lawyer, Donate, Degree, Hosting, Claim, Conference Call, Trading, Software, Recovery, Transfer, Gas/Electricity, Classes, Rehab, Treatment, Cord Blood, domain, music, mobile, phone, buy, sell, classifieds,recipes
Top