টপসের পিন খুলে গেলেও ফিগার স্কেটিং থামাননি অলিম্পিক প্রতিযোগী

অলিম্পিকের ফিগার স্কেটিংয়ে অংশ নেন ২২ বছর বয়সী দক্ষিণ কোরিয়ার তরুণী ইয়োরা মিন। তবে স্কেটিং- এর শুরুতেই ঘটে যায় ভয়াবহ বিপত্তি।

১১ ফেব্রুয়ারি ইয়োরা ও তার ফিগার স্কেটিং সঙ্গী আলেকজেন্ডার যখনই আইস ড্যান্স স্কেটিং শুরু করেন, তার কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই ঘটে এই অপ্রত্যাশিত ঘটনা। প্রদর্শনীর শুরুতেই ইয়োরার পোশাকের উপরের অংশের পিন হঠাৎ করেই খুলে যায়। তবে তাই বলে ইয়োরা ও আলেকজেন্ডার দমে যাননি, শেষ পর্যন্ত তারা ঠিকই তাদের প্রদর্শনী চালিয়ে গেছেন। একে অপরের সহযোগিতায় দু’জনই বেশ কৌশলে অলিম্পিকের হাজার হাজার দর্শকের সামনে সম্পন্ন করলেন তাদের এই ফিগার স্কেটিংটি। যদিও স্কেটিংয়ের সময় ইয়োরাকে বারবার তার পিন খুলে যাওয়া লাল রংয়ের টপসকে আটকে ধরতে দেখা যায়।

ইয়োরা ও আলেকজেন্ডারের ওই হার না মানা ফিগার স্কেটিং- এর ভিডিওটি ইতোমধ্যে ইন্টারনেটে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। শুধু তাই নয়, তাদের স্কেটিং পারদর্শিতা প্রশংসায় ভাসছে নেট জগত। যদিও এ বছর অলিম্পিকের ফিগার স্কেটিং-এ ৮০.৫১ পয়েন্ট অর্জন করে জয়ী হয়েছেন কানাডার বসবাসকারী টেসা ভার্চু এবং স্কট মুর।

সুত্র: ডেইলি মেইল।

কমেন্টসমুহ
সিক্রেট ডাইরি সিক্রেট ডাইরি

Top