fbpx

আফ্রিদির এক থাপ্পর খেয়ে ফিক্সিংয়ের কথা স্বীকার আমিরের

পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ আমির ২০১০ সালে স্পট ফিক্সিংয়ের অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছিলেন। কিন্তু প্রথমে তিনি ফিক্সিংয়ের বিষয়টি স্বীকার করেননি। পরে শহীদ আফ্রিদির এক থাপ্পড় খাওয়ার পর নাকি ফিক্সিংয়ের কথা স্বীকার করেছিলেন আমির।

পাকিস্তানের সাবেক অলরাউন্ডার আব্দুল রাজ্জাক দ্বাদশ বিশ্বকাপ চলাকালে ৯ বছর আগের সেই ঘটনা প্রসঙ্গে এমন চাঞ্চল্যকর তথ্য ফাঁস করলেন।

কিন্তু বিশ্বকাপ দলে শেষ মুহূর্তে ডাক পাওয়া আমিরই এবার পাকিস্তানের বোলিং আক্রমণের মূল অস্ত্রে পরিণত হয়েছেন। মূলত ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার পরই জোনায়েদ খানকে সরিয়ে আমিরকে বিশ্বকাপ দলে জায়গা করে দেয়া হয়। নির্বাচকদের আস্থার শতভাগ মূল্য দিয়ে চলেছেন বাঁহাতি এই পেসার।

এরই ধারাবাহিকতায় ক্যারিয়ারের প্রথম বিশ্বকাপের চতুর্থ ম্যাচে বুধবার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১০ ওভারে মাত্র ৩৭ রান দিয়ে ৫ উইকেট তুলে নিয়েছেন আমির। অথচ এই ইংল্যান্ডের মাটিতেই ৯ বছর আগে স্পট ফিক্সিংয়ের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হয়েছিল তাকে।

তৎকালীন অধিনায়ক আফ্রিদি রাজ্জাকের সামনেই আমিরকে বাবার বোঝাচ্ছিলেন। সেই ঘটনার বর্ণনা দিয়ে এক সাক্ষাৎকারে রাজ্জাক বলেন, ‘আফ্রিদি আমাকে ঘরের বাইরে যেতে বলেছিল। আমি বেরিয়ে গিয়েছিলাম ঘর থেকে। কিছুক্ষণ পরেই একটা জোরালো থাপ্পড়ের শব্দ শুনতে পাই। এরপরেই আমির পুরো সত্যিটা জানায়।’

কমেন্টসমুহ
সিক্রেট ডাইরি সিক্রেট ডাইরি

Top