ঘাম কমানোর চার উপায়

ঘাম হওয়া ভালো, ঘাম শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ বের করে দিতে সাহায্য করে। তবে অতিরিক্ত ঘাম খুব অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তাই আসুন জেনে নেই অতিরিক্ত ঘামের সমস্যা থেকে কিভাবে মুক্ত থাকা যায়।

ঝালজাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন: অতিরিক্ত ঝালজাতীয় খাবার ঘাম বাড়ায়। এ ধরনের খাবারের মধ্যে রয়েছে ক্যাপসাচিন নামের উপাদান। এটি অতিরিক্ত ঘামের জন্য দায়ী। তাই এ ধরনের খাবার খাদ্যতালিকা থেকে বাদ দিন।

কফি পান কমান: কফি খাওয়ার পরপরই যদি আপনার ঘাম হয়, তাহলে বুঝতে হবে কফির কারণেই এ ঘাম। এটি কেবল কফি নয়, ক্যাফেইন রয়েছে এমন বিভিন্ন খাবার থেকে এ ধরনের সমস্যা হতে পারে।

শিথিল থাকুন: সব সময় উদ্বেগ কাজ করলে এটি ঘামের সমস্যা বাড়িয়ে তোলে। তাই অতিরিক্ত ঘাম প্রতিরোধে শরীর ও মনকে শিথিল রাখুন। এ ক্ষেত্রে গভীর শ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়াম করতে পারেন।

গোসলের পর ডিওড্রেন্ট ব্যবহার: ঘামের সমস্যা কমাতে গোসলের পর ডিওড্রেন্ট ব্যবহার করুন। এ ক্ষেত্রে ত্বক ভালোভাবে শুকিয়ে নিন। এটিও অতিরিক্ত ঘামের সমস্যা কমাতে সাহায্য করবে।

সিক্রেট ডাইরি সিক্রেট ডাইরি

Top aplikasitogel.xyz hasiltogel.xyz paitogel.xyz